১৩ই মার্চ হল খুলছে ঢাবি

Share This News

করোনা মহামারির কারণে গত বছর মার্চ থেকে বন্ধ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।যার ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক শিক্ষাকার্যক্র বন্ধ থাকে ।
প্রায় এক বছর পর স্বাভাবিক শিক্ষাকার্যক্রম চালু রাখার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো খুলে দিতে যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কতৃপক্ষ ।
প্রথম পর্যায়ে সকল শীক্ষার্থীকে হলে তোলা হবে না, শুধু মাত্র স্নাতক শেষবর্ষ ও স্নাতকোত্তর শ্রেণির পরীক্ষার্থীদের জন্য হল খোলা হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা পরিষদ সভায় এই সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়।বলে জানিয়েছেন সহউপাচার্য মাকসুদ কামাল।এর পূর্বে হলগুলো খুলে দেওয়ার ব্যাপারে সুপারিশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোষ্ট কমিটি।স্নাতক শেষ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীদের যে সকল সেমিস্টার বাকি রয়েছে তাদের জন্য হলগুলো খুলে দেওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সেই সকল শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেওয়ার লক্ষ্যে হলে তোলা হবে।কেবল মাত্র স্নাতক শেষ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরে অধ্যয়নরত শীক্ষার্থী যাদের হলের আবাসিকতা রয়েছে তাদেরকেই হলে ওঠানো হবে।শীক্ষার্থীদের ক্যাম্পাস খোলার পরপরই আনুমানিক ২ সপ্তাহ পরে অনুষ্ঠিত হবে পরীক্ষা।হল খোলার প্রথম দুই সপ্তাহ কোন শ্রেণী কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে না।এই দুই সপ্তাহ শিক্ষার্থীদের তাদের পড়ার ছন্দে ফেরার ও হলের সামগ্রিক প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য সময় দেওয়া হবে।তবে শীক্ষার্থীরা যে কোন বিষয়ে মত বিনিময় করতে পারবে শিক্ষদের সাথে।

সহউপাচার্য মাকসুদ কামাল বলেন,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার ভবন আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি থেক নিয়মিতভাবে খোলা থাকবে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য পরিবহন চালু করা হবে, যাতে ধীরে ধীরে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার প্রস্তুতি নেওয়া যায়।

গতবছর মার্চের ২০ তারিখে আবাসিক হলগুলো খালি করে দেওয়া হয় করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের জন্য। জুলাই থেকে অনলাইন ক্লাস
অনুষ্ঠিত হলেও পরীক্ষাগুলো নেওয়া সম্ভবপর হয়ে নাই।

বিশ্ববিদ্যালয়বিষয়ক যে কোন তথ্য পেতে- University


Share This News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *