রোজার নিয়ত;আপনার রোজা হোক পরিশুদ্ধ

Share This News

সকল মাস থেকে উত্তম মাস রমজান মাস এই রমজান মাসে পবিত্র কোরআন নাজিল হয়েছে। রমজান মাসে আমরা আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য রোজা রেখে থাকি যাবতীয় পানাহার দ থেকে দূরে থাকি। রমজান একজন মুসলিমের জন্য সংশোধনীর মাস।এই মাস গুনহা মাপের মাস।

রমজান মাসে রোজা রাখার জন্য স্বয়ং আল্লাহ তাআলা নির্দেশ দিয়েছেন। আমরা রোজা রাখার মাধ্যমে  আল্লাহর নৈকট্য লাভ করতে পারি।রোজা কেবল মাত্রআল্লাহর সন্তুষ্টের জন্যে করে থাকে।তাই যে ব্যাক্তি রোজা রাখবে আল্লাহ তা’লা তাকে নিজ হাতে এর প্রতিদান দিবে।

আল্লাহ তাআলা কুরআন মাজিদে বলেছেন, ‘হে ঈমানদারগণ! তোমাদের ওপর সিয়াম বা রোজা ফরজ করা হয়েছে; যেভাবে তোমাদের পূর্ববর্তীদের ওপর ফরজ করা হয়েছিল; যাতে তোমরা তাকওয়া (আত্মশুদ্ধি) অর্জনে করতে পার। (সুরা বাকারা : আয়াত ১৮৩)

অর্থাৎ রোজা এমন একটি ইবাদত যা পূর্ববর্টী নবীদের উম্মতের উপরও ফরজ করা হয়েছে।

রমজানে রোজা রাখার উদ্দেশ্য আমরা সাহরি করে থাকি।মহানবী (স.) সাহরি গ্রহণের জন্য তাগিদ দিয়েছেন। সাহরি গ্রহণ করা সুন্নত।সুবেহ সাদিকের পূর্বে আমাদের সাহরি গ্রহণ করতে হবে।তবে বর্তমানে শহর কেন্দ্রিক মানুষেরা মধ্য রাতে সাহরি গ্রহণ করে যা মোটেও ঠিক নয়।রাসূল (স.)নির্দেশ দিয়েছে সাহরি যাতে সুবেহ সাদিকের কিছু সময় পূর্বে গ্রহন করে।তাই মধ্যরাতে সাহারী গ্রহণ করা অনেকটা সুন্নতের পরিপন্থী।

সাহরি সম্পর্কে একটি হাদিসে এসেছে 

হযরত আমর ইবনুল আস রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, আমাদের রোজা এবং আহলে কিতাব তথা ইয়াহুদি ও খ্রিস্টানদের রোজার মধ্যে পার্থক্য হলো সাহরি খাওয়া। (অর্থাৎ মুসলিমরা সাহরি খায় আর ইয়াহুদি ও খ্রিস্টানরা সাহরি খায় না)।’ (মুসলিম, নাসাঈ)

উপোরক্ত হাদিস থেকে আমরা দেখতে পাই,একজন মুসলিমের জন্য সাহারী গ্রহণ করা কতটা জরুরি।

রোজা পালনে সাহরির সাথে সাথে রয়েছে রোজার নিয়তের গুরুত্ব।মানুষের প্রত্যেকটি কাজ নিয়তের উপর নির্ভরশীল।তাই রোজার রাখার জন্য চাই সহী নিয়ত।আমরা রোজার সহী নিয়ত করবও।আল্লাহর সন্তুষ্ঠের জন্য রোজা রাখবও।আমরা প্রতিদিন সাহরীর পরে রোজার নিয়ত করবও।আমাদের নিয়ত যাতে হয় রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম দেখানো রোজা পালনের-

রোজার নিয়ত

نَوَيْتُ اَنْ اُصُوْمَ غَدًا مِّنْ شَهْرِ رَمْضَانَ الْمُبَارَكِ فَرْضَا لَكَ يَا اللهُ فَتَقَبَّل مِنِّى اِنَّكَ اَنْتَ السَّمِيْعُ الْعَلِيْم 

রোজার নিয়ত বাংলা উচ্চারণ- নাওয়াইতু আন আছুম্মা গাদাম মিন শাহরি রমাজানাল মুবারাকি ফারদাল্লাকা, ইয়া আল্লাহু ফাতাকাব্বাল মিন্নি ইন্নিকা আনতাস সামিউল আলিম।

 বাংলা অর্থ : হে আল্লাহ! আমি আগামীকাল পবিত্র রমজানের তোমার পক্ষ থেকে নির্ধারিত ফরজ রোজা রাখার ইচ্ছা পোষণ (নিয়্যত) করলাম। অতএব 


Share This News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *