“জরুরী জীবিকা” নামে একটা সহজ মুভমেন্ট পাস দেয়া হউক

Share This News

তরুণ উদ্যেক্তা গড়ার কারিগর ও বাংলাদেশে সর্বজন পরিচিত একজন ব্যক্তি ইকবাল বাহার জাহিদ।তিনি সবসময় অসহায় ও দুস্থদের নিয়ে ভাবেন এবং তাদের জন্য কাজ করেন।

জনাব ইকবাল বাহার জাহিদ তার নিজস্ব অফিসিয়াল ফেসবুক পেজের মাধ্যেমে এক সুন্দর বার্তা দেন।তিনি এক শ্রেণীর লোকদের মুভমেন্ট পাস দেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন,

যাদের কাজ না করলে খাবার জুটবে না, যারা কাজ না করলে বেতন পাবে না বা চাকরী হারাবে, দোকানদার, ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা যারা ব্যবসা হারাবে – তাঁদের এই পাস দেয়া হউক! 

আরও ৭ দিন বাড়ছে লক ডাউন !

নিম্নআয়ের ও যারা দিনে এনে দিনে খায় মানুষদের একের পর এক লক ডাউন টেনে নেয়ার মতো সামর্থ্য তাঁদের নেই। তাঁরা কষ্টে আছে ,অনেক কষ্টে!

তিনি আরো বলেন,

লক ডাউনে ধনীদের কোন অসুবিধা হচ্ছে না, তাঁরা ঘরেও থাকছে আবার তাঁদের অনেকের শিল্প কারখানাও খোলা আছে। চিন্তা নেই সরকারী চাকরিজীবীদেরও। বরং যারা স্বাস্থ্য সচেতন সামর্থ্যব্যান, তাঁরা বাড়িতেই থাকুক স্বেচ্ছায়, নিজেরা স্বেচ্ছায় লক ডাউনে থাকুক।

লক ডাউন খুলে দিয়ে বা শিথিল করে স্বাস্থ্যবিধির উপর জোর দিয়ে আইন প্রয়োগ করুন। সবাইকে মাস্ক পড়তে বাধ্য করুন, নইলে জরিমানা! ভিড় এড়াতে উৎসাহিত করুন।

কোটি কোটি  দিনে আনে দিনে খায় মানুষ, নিম্ন মধ্যবিত্তরা, মধ্যবিত্তরা, স্বল্প বেতনের বেসরকারি চাকুরীজীবীরা, ক্ষুদ্র ও মাঝারী উদ্যোক্তারা অনেক কষ্টে আছে, দম বন্ধ হয়ে আসছে তাঁদের সংসার চালানোর চিন্তায়।

ইকবাল বাহার জাহিদ তার এই সুন্দর বার্তাটি দেন উনার ফেসবুক পেজে।তার এই বার্তাটিতে উঠে এসেছে অসংখ্য সাধারণ মানুষের কথা।উঠে এসেছে যারা দিনে এনে দিনে খায় তাদের নিরব মুখের ভাষা।


Share This News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *