দখলদারি ইসরাইলের আকাশপথ ব্যবহার করে না বাংলাদেশ বিমানবাহিনী

Share This News

দখলদারি রাষ্ট্র ইসরাইলের বিপক্ষে বাংলাদেশ স্বাধীনতার পর থেকে অবস্থান দৃঢ়। বাংলাদেশ পাসপোর্ট এর সকল দেশে যাওয়ার অনুমতি থাকলে কেবলমাত্র ইসরাইলে যাওয়ার অনুমতি প্রদান করা হয় নাই। স্বাধীনতার পর থেকে এখন পর্যন্ত ইসরাইলকে বাংলাদেশ শরণার্থী হিসেবে জানে এবং তাদের থেকে বাংলাদেশে বিচ্যুত পৃথিবীর অন্যান্য উন্নত দেশগুলো তাদের সাথে সংযুক্ত থাকলেও বাংলাদেশে বরাবর মতোই ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করে চলছে।

বাংলাদেশ বিমান বাহিনী  জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে কাজ করার সময়  বাংলাদেশ বিমান বাহিনীকে  নানা দেশের আকাশপথ ব্যবহার করতে হয় কিন্তু বাংলাদেশ বিমান বাহিনী  ইজরায়েলের আকাশসীমা ব্যবহার করার সুযোগ থাকলেও ইজরায়েলের আকাশসীমা ব্যবহার করেনা।

সাম্প্রতিক সময়ে লেবাননের যে দুর্ঘটনা ঘটে তখন বাংলাদেশ সরকারের ত্রাণ সামগ্রী প্রেরণ করে লেবাননে  । প্রেরণের সময় বাংলাদেশ বিমান বাহিনী খুব সহজেই ইসরায়েলের আকাশপথ ব্যবহার করে তার সামগ্রী পৌঁছাতে পারতো কিন্তু তা না করে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ইসরায়েলের   আকাশপথ ব্যবহার না  ভূমধ্য সাগর পাড়ি দিয়ে লেবানন পৌছায়। এমনকি বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ইজরায়েলের কোন সমুদ্র সীমা পর্যন্ত ব্যবহার করেনি ।

এছাড়া শান্তিরক্ষা মিশনে নানাবিধি প্রয়োজনে ইসরাইলের আকাশপথ ব্যবহার না করে বাংলাদেশ বিমানবাহিনী ভিন্ন পন্থা অবলম্বন করে কার্য সম্পাদন করে থাকে।

বাংলাদেশের সর্বস্তরের মানুষ  ফিলিস্তিনকে সমর্থন করে যাচ্ছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতার জন্য ফিলিস্তিন শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য বাংলাদেশ বরাবরের মতই কাজ করে যাচ্ছে এবং বাংলাদেশের মানুষ ফিলিস্তিনকে মনেপ্রাণে ভালোবাসে এবং তাদের স্বাধীনতার জন্য সর্বোচ্চ সহযোগিতা করার মনোভাব পোষণ করে।


Share This News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *