আপনি কী হতাশগ্রস্থ,একাকীত্ব,অবসাদগ্রস্থ? এই লেখাটি আপনার জন্য

Share This News

আমাদের জীবনের চলার পথে হতাশগ্রস্থ,একাকীত্ব,অবসাদগ্রস্থতা আমাদের ভিতরের আমাত্বকে ধ্বংস করছে।ধ্বংস করছে আমাদের উন্নত এক জীবনকে।আমরা আপনাকে উন্নত এক জীবনের সন্ধান দিতে চাই।

শুনাতে চাই আশার আলো।দূর করতে চাই আপনার ভিতরকার হতাশা ,একাকীত্ব,অবসাদ।আপনি আমাদের আর্টিকেল পড়তে থাকুন শুরু থেকে শেষে খুঁজে পান নিজেকে নিজের ভিতরের সম্ভাবনাকে।কয়েকবার পড়ুন। নিজেকে তৈরি করুন উন্নত এক মানব।

১. প্রথম হচ্ছে কোন একটি শখ বাছুন-


আপনি যদি নিজেকে একাকিত্ব থেকে দূরে রাখতে চান তাহলে আপনার সবচেয়ে ভালো একটা উপায় হচ্ছে আপনার একটা শখ পছন্দ করা। শখ যেকোনো কিছু হতে পারে, হতে পারে বারান্দা একটা গাছ লাগানো, গাছের পরিচর্যা করা, অথবা অবসরে ছবি আঁকা এমনও হতে পারে অবসরে বসে বসে কবিতা কোন গল্প লেখা। যে কবিতা বা গল্প থেকে হতে পারে আপনার লেখা একটি বই। আর যখন আপনি একটি শখ নিয়ে কাজ করবেন তখন আপনার একাকীত্ব দূর হবে এবং আপনার মাথায় দুশ্চিন্তা গুলো আনন্দে কনভার্ট হবে।

ভালো বই পড়তে পারেন


আমি সাধারণত কাউকে বই পড়তে বলিনা বইয়ের সাথে কথা বলতে বলি। একটা উক্তিতে আছে “একটি ভালো বই একশত বন্ধুর সমান”। আপনি যত বই পড়বেন আপনার মাথার মধ্যে তত ভালো ভালো আইডিয়াতোইরি হবে এবং কি সেই সাথে আপনার একাকীত্ব দূর হবে। আপনি যখন বই পড়বেন এবং বই পড়তে অভ্যস্ত হয়ে যাবেন তখন দেখবেন এক সময় মনে হবে যে আপনি যখন বই পড়েন বই আপনার সাথে কথা বলে।


কোন একটি স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানে যোগদান করতে পারেন-


আপনি একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সাথে নিজে যুক্ত হতে পারেন অথবা আপনি নিজে একটা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন তৈরি করতে পারেন। যে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সমাজের কাজে নিজেকে আত্মনিয়োগ করবে। আপনি যখন অন্যের মুখে হাসি ফোটাতে পারবেন তখন দেখবেন আপনি নিজে একটা আত্মতৃপ্তি পাচ্ছেন।

সাইকেল চালাতে পারেন-


সাইকেল চালানো নিয়ে আমরা বেশি কথা বলব না এখানে, সাইকেল চালানো উপর আমাদের একটা আর্টিকেলে আছে আপনি ইচ্ছা করলেই আর্টিকেলটা পড়তে পারেন।

নিজেকে ফিট রাখতে সাইকেল চালান

ঘুরে বেড়ান/ ভ্রমন করুন:


আপনি যখন অফিসের কাজে অনেক ক্লান্ত অথবা কোন একটা কাজেই একগুয়ে মনভাব চলে আসে। তখন আপনার এই একগুঁয়ে মনোভাবটি দূর করতে আপনি চলে যেতে পারেন কোন একটি সুন্দর স্থানে ঘুরতে। তবে ঘুরতে যাওয়ার জন্য আপনার খুব নিকট বন্ধুদের সাথে নিতে পারেন। কারণ বন্ধুরা সাথে থাকলে আপনার ভ্রমণ আনন্দ দ্বিগুণ হয়ে যাবে।
ভ্রমণ করুন-

এই বসন্তে ঘুরে আসুন গোলাপের রাজ্যে

জনপ্রিয় ৫ টি পর্যটন স্পট


নিজেকে ভালো খাবারদাবার খাওয়ান
ভালো খাবার দাবার আমাদের মনকে ভালো রাখে । সেইসাথে ভালো খাবার দাবার খেলে নিজের ভিতর অন্য রকম একটা অনুভব সৃষ্টি হয়। তাছাড়া আপনি নিজে খাবার-দাবার যতটুকু না আনন্দ পাবেন তার চেয়ে আরো একটা কাজ করলে আরও বেশি আনন্দ পাবেন।
যখন আপনি একাকী বা আপনার মনঃ খারাপ তখন বাহিরে গিয়ে কোন ক্ষুদার্থের মুখে খাবার তুলে দেন দেখবেন আপনার কাছে নিজেকে মহাপুরুষ মনে হবে।

নতুন কিছু শিখুন-


যখন আপনি একাকীত্ব বা হতাশাগ্রস্ত তখন নতুন কিছু শিখতে পারেন। নতুন কিছু শিখলে আপনি সাধারণত হতাশাগ্রস্ত থেকে কিছুটা আশাবাদী হবেন। সেই সাথে
নতুন কোন দক্ষতা আপনার মধ্য অর্জিত হবে।

নিয়মিত হাটুন

নিয়মিত হাটার অভ্যাস তৈরি করুন। হাটলে মানুষের মধ্যাকার দুশ্চিন্তা দূর হয়।
সেই সাথে হাটলে মানুষের ভিতরে নতুন নতুন আইডিয়া ও পরিকল্পনা সৃষ্টি হয় ।
যে নিয়মিত হাটে সেই মানুষটি হয় সম্ভাবনাময়ী।


Share This News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *